প্রেম এবং ভালোবাসা , মন নাকি দেহ ?

দেহ এবং মন নিয়েই প্রেম এবং ভালোবাসার পূর্ণতা বলে আমরা সবাই জানি এবং এটাই চরম সত্য বলে মনে করি । আসলে কি তাই? আমার মতে প্রেম কিছু নয়, শুধুমাত্র বয়সের এবং প্রাকৃতিক নিয়মের ক্রিয়াই প্রেম অথবা ভালোবাসা । খুব ঠান্ডা মাথায় আমার লেখার উপর উত্তেজিত না হয়ে চিন্তা করে দেখুন, আমি যদি বস্তুবাদী হই আমার কাছে তো মনের সংঙ্গাটা ভাবের একটা অংশ মনে করা উচিৎ এবং দেহকে প্রাধান্য দেওয়া প্রয়োজন কেননা দেহ শুধু বস্তু । যদিও আমাদের কাছে মন বলে একটা বাক্য আমাদেরকে নানানভাবে প্রভাবিত করে ।

আমি যদিও বস্তুবাদ দিয়ে প্রেম অথবা ভালোবাসাকে বিশ্লেষণ করার চেষ্টা করছি এর কারণ একটাই নতুন কোন কিছু যদি মিলে যায় তাহলে অনেকের উপকারে আসবে । আমার জানামতে পুরাতন সংঙ্গা দিয়ে নতুন কিছুর বিশ্লেষণ নতুন কিছু সৃষ্টি করে । যাই হোক একজন পাঠক অনেক রকমভাবে একটি লেখাকে মন্তব্য করতে পারেন , তা কেবল পাঠকের অভিব্যাক্তি ।

মূল কথায় আসি, আমরা কেনো বরাবরই এক লিঙ্গ ভিন্ন লিংঙ্গের প্রতি আকৃষ্ট হই? কেনইবা তার নাম হিসেবে আমরা প্রেম অথবা ভালোবাসা দিয়ে থাকি? এক লিংঙ্গের প্রতি ভিন্ন লিঙ্গের আকর্ষন সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক এবং এটা বরাবরই হয়ে থাকছে, কেউই যে এই আকর্ষণের বাইরে নয় তা বরাবর সত্য এবং সুন্দর । সবার কাছে যদিও প্রচলিত সুন্দর মন, সুন্দর ভালোবাসার উপাদান । কিন্তু একটা বিষয়, যেটা শুধুমাত্র অনুভবের বিষয় মাত্র তা কিভাবে ভালোবাসা সুন্দর করার উপাদান হতে পারে?

অনেকের কাছে প্রশ্ন জাগবে আমি মন নিয়ে নির্দিষ্ট সংঙ্গা কিছুই না দিয়ে কেনই ভাববাদ এবং বস্তুবাদ দিয়ে প্রেম ভালোবাসার উপর আলোচনা করছি । মনের সঠিক সংঙ্গা কি হতে পারে তা আপনারাই বেশ ভালোভাবে জানেন কিন্তু কখনো বুঝার চেষ্টা করেননি হয়তো । আমার কাছে মনের সংঙ্গা হলো ,মন ঠিক তাই যা আমাদের জিনগত এবং ছোট থেকে বড় হওয়ার সময় পর্যন্ত আমাদের চারপাশের পরিবেশ থেকে দীক্ষিত শিক্ষা । যদি আনুপাতিক হারে বলতে গেলে জিন আর আমাদের চারপাশের শিক্ষা নিয়েই আমাদের মন ধীরে ধীরে গঠিত হয় । মন এমন একটা ভাব যা কেবল নিজের দৈহিক সৃষ্টির উপর অনেকটা নির্ভরশীল । সুতরাং বিস্তারিত আলোচনা করতে গেলে বুঝা যাবে, মন ঠিক আমাদের অন্যান্য অন্ধবিশ্বাসের মতই একটা মিছেমিছি বিশ্বাস। মূলত প্রেম এবং ভালোবাসা দেহতেই সীমাবদ্ধ । ঠিক এখানেও মনের কোন ক্রিয়া নেই, ক্রিয়া কেবলই দেহ জুড়ে ।

শতকরা ৯০ জন মানুষের কাছে, সত্যিকারের ভালোবাসা মানেই তথাকথিত মন জুড়েই । কিন্তু দেহ দিয়েই তারা ভালোবাসার পরিব্যপ্তি ঘঠায় ,ঘঠাতে হয় । এই যে আমার কথা বলা ,হাটা চলা যতক্ষণ আছে ঠিক ততক্ষণ আমরা মন বিষয়টা মুখে আনতে পারি তারপর আবারো উদাও । সুতরাং ভালোবাসা এবং প্রেমের সারাংশ বস্তুগত মানে দেহজুড়েই ।

সুন্দর মন বলতে কিছু আছে বলে আমি মনে করি না । সুন্দর মন ঠিক ততক্ষণ ,যতক্ষণ সেই মন আপনার অনুকূলে থাকে, প্রতিকূলে গেলেই সেই মন ব্রিশ্রি আখ্যায়িত । আমার কথা চিরায়ত সত্য নয়, এগুলো যুগের ভাবনা মাত্র । আপনিও মন এবং দেহ নিয়ে ভালোবাসা এবং প্রেম নামক বাক্যগুলুকে বিশ্লেষণ করার চেষ্টা করুন হয়তো নতুন কোন দর্শন মিলতে পারে । সবমিলিয়ে আমার কাছে প্রেমের মূল সারাংশ কিন্তু দেহ, মন নয় ।

শেয়ার করুন

ব্লগার শিপ্ত বড়ুয়া

শূন্য দশকের অপরাধ

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।