উমা’দি

শামীম আহসানঃ

উমা’দি কখন এলে?
কেমন আছো উমা’দি?
উমা’দি তোমাদের লিলা খেলা শ্যূটিং এর খবর কি?
দিদি সস্তা সিগারেট আছে খাবে?
উমা’দি এ্যাশট্রের দিকে তাঁকিয়োও না গো,
শরম দিয়ো না আর।

আমার সমস্ত রাত্রি থেকে নিকোটিন চুষে নিয়ে,
আধ-খাওয়া অবস্থায় এ্যাশট্রেতে রেখেছি।
উমা’দি সরি রে অনেক দিন পর এলে দামি সিগারেট খাওয়াতে পারলাম না।
আসলে গতমাস থেকে আমার খুব মন্দা যাচ্ছে পকেটে টাকা নেই।
প্রকাশক’কে আমার কবিতা ছাপাতে দিয়েছিলাম,
তারা বললো,
আমার কবিতায় অশ্লীলে ভরপুর।

হ্যাঁ গো দিদি তোমারও তাই মনে হয়?
আজব, হাঁসছো কানো?
প্রকাশকের কথা শুনে আমারও হাসি পেয়েছিল।
সালা ব্যাটা রাতের পর রাত পতিতালয়ে গিয়ে রস ফেলে আসবে,
আর আমার কবিতাকে বলবে অশ্লীল।

অশ্লীল হয়েছে বেশ হয়েছে,তোর ব্যাটা ছাপাতে হবেনা।
আমি তাঁদের মতো সভ্য কবি হতে পারবোনা বলে দিলাম তোমায় দিদি।
এই দুই প্যাকেট সিগারেটই এখন আমার রাত্রি জাগার সম্পদ।
এগুলো কে দিয়ে গিয়েছে দিদি জানো?
তোমাকে আমার এক নব্যপ্রেমিকার সঙ্গে সাক্ষাত করে দিয়েছিলাম না!
বাংলা সাহিত্যের মেয়ে, মনে আছে?

সে গতকাল এগেছিল,
সঙ্গে এনেছিল পাঁচ প্যাকেট সিগারেট।
তার সাথে আমার কবিতা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছিল,
হঠাৎ তার ভেজা ঠোঁট দেখে না আমার ঠোঁটে তৃষ্ণা জাগে।
বলি,লীলা তোমার ঠোঁটে চুমু খায়।
সে গেল রেগে,আমাকে বলে গেল,
আমি নাকি চত্রিহীন।

দিদি এতো হেসো নাতো,ভালোলাগছেনা!
আমার কি কোন দোষ আছে দিদি,
আমি তো তাকে ভালোবাসতাম বলো!
কি বললে,
চলে যাবে?
আচ্ছা যাও তোমরা তো আবার স্টার মানুষ!
না না লাগবেনা দিদি।

আচ্ছা যখন চাচ্ছো দিয়ো।
তবে এই সস্তা সিগারেটই দিয়ো,
দামি সিগারেট আর ঠোঁট চায়না।
আর উমা’দি পারলে দুই বোতল দিয়ো!!
হা হা হা বাংলার মানুষ তো দিদি!!
যাও……বোতল দিয়ো কিন্তু!!

শেয়ার করুন
  • 36
    Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!