গতি

মোঃ লুৎফর রহমান :

পৃথিবীতে গতিশীল বস্তু ছাড়া কিছুই নেই ।সব পদার্থই রয়েছে গতি ও পরিবর্তনের অবস্থায় । এঙ্গেলস বলেছেন গতি হলো বস্তুর অস্তিত্বের ধরণ । গতি ছাড়া কোনো কিছু থাকতে পারে না । (১) বিরাম আপেক্ষিক, গতি অনাপেক্ষিক : পৃথিবীতে বস্তুর গতি ও পরিবর্তন বিরামকে বাতিল করে দেয় না । গতিশীল পদার্থগুলোর কিছু স্থিতিশীলতা থাকে । কিন্তু গতি ও .বিরাম বিচ্ছিন্ন নয় । ধরা যাক একটি মানুষ ঘুমুচ্ছে । মানুষটি আছে বিরামের অবস্থায় । কিন্তু এই বিরাম আপেক্ষিক । মানুষটি, ঘর ও পৃথিবী সমেত গতিতে আছে । তাছাড়া মানুষটির হৃদপিণ্ড, ফুসফুস, রক্ত এসব আছে গতিতে । সুতরাং বিরাম আপেক্ষিক । গতি আনাপেক্ষিক ।

কোনো বস্তু একদিকে বিরামের অবস্থায় থেকে অন্যদিকে গতি ও পরিবর্তনের অবস্থায় থাকে । (২) গতি বস্তুর স্থানিক ও আভ্যন্তরিক পরিবর্তন ঘটায় : প্রাচীন দার্শনিকরা বস্তুর গতির এক সংকীর্ণ ও সীমিত ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন । তারা গতিকে দেখেছিলেন স্থানিক পরিবর্তনে । কিন্তু গতির কারণে স্বয়ং পদার্থগুলোরই পরিবর্তন হয় । (৩) গতির বহুবিদ রূপ : (ক) যান্ত্রিক রূপ : বস্তুগুলোর পরস্পরের সাথে সম্পর্কিতভাবে স্থানিক পরিবর্তন । (খ) পদার্থবিদ্যাগত রূপ : যেমন – তাপ, ধ্বনি, বিদ্যুৎচৌম্বক, গতির ইত্যাকার রপ । (গ) রাসায়নিক রূপ : বিভিন্ন পদার্থ গঠনকারী অনুগুলোর গঠন ও পরিবর্তন । (ঘ) জীববিদ্যাগত রূপ : জৈব জীবন, জীবসত্তাগুলোতে চলমান পরিবর্তন । (ঙ) সামাজিক রূপ : মানবসমাজের বিকাশ ।

এই সব গতির রূপের উপর এঙ্গেলস বিশেষভাবে গুরুত্বারোপ করেছিলেন । (৪) পারষ্পরিক সম্পর্ক ও নির্ভরশীলতা : বস্তুর গতির সমস্ত রূপ কঠোরভাবে পরস্পরসংযুক্ত ও পরস্পরনির্ভরশীল । গতির কতকগুলো রূপ হলো অন্যান্য রূপের আত্মপ্রকাশের পূর্বশর্ত । (৫) নির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্য : বস্তুর গতির প্রত্যেকটি রূপের নিজস্ব সুনির্দিষ্ট বৈশিষ্ট্য আছে । প্রত্যেকটি রূপ পরবর্তী উচ্চতর রূপের আত্মপ্রকাশকে নির্ধারণ করে এবং নিজে উচ্চতর রূপটির অন্তর্ভুক্ত হয়ে যায় । কিন্তু উচ্চতর রূপগুলোকে নিম্নতর রূপগুলোতে রূপান্তর করা যায় না । এইভাবে জীবসত্তার মধ্যে যুক্ত থাকে বস্তুর গতির সব পূর্ববর্তী রূপ; যান্ত্রিক, পদার্থবিদ্যাগত ও রাসায়নিক । (৬) শক্তির অক্ষয়তা, পরিবর্তন শুধু রূপের : বিজ্ঞান গতির একটি রূপ আরেকটি রূপে উত্তোরণ আবিস্কার করেছে । পরিমাণগত দিক থেকেও উত্তেরণ দেখিয়েছে । যেমন শক্তির অক্ষয়তা ও রূপান্তরের নিয়ম অনুযায়ী শক্তির বা গতির সামগ্রীক পরিমাণ একই থাকে, বাড়ে-কমে না । গতি শুধু পরিবর্তন করে তার রূপগুলো । এই নিয়মটি বস্তু ও গতির মধ্যে ঐক্যের বৈজ্ঞানিক প্রমাণ দেখায় ।

Comments

comments

Updated: ৬ অক্টোবর, ২০১৭, ১০ টা ০২ মিনিট, অপরাহ্ণ — ১০:০২ অপরাহ্ণ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আমার কলম © ২০১৭, সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। লেখা পাঠানোর ঠিকানা: editor@amarkolom.com