সুত্রপাত / অনন্যা / আবেগ নয় চেতনাই হোক আমাদের শক্তি

আবেগ নয় চেতনাই হোক আমাদের শক্তি

সুদর্শনা চাকমা:

নিজের উপর বিশ্বাস রেখে চলার চেয়ে উত্তম আর কিছু নেই। আমি বলতে চাই আমার জীবনকে আমি ভালবাসি আর তাই আমার জীবনের সবকিছু আমি নিজের মত করে তৈরি করবো। নিজের মত করে উপভোগ করবো। তার উপর অন্য কারো জীবনকে নির্ভর করে নিজেকে ভালবাসা একদম বোকামি। আমরা যারা এই ধরনের কথাগুলো উচ্চারণ করি এই ধরনের চিন্তা কিছু না কিছু করি। এই আমাদের কাছে ন্যূনতম প্রত্যাশা নিশ্চয়ই সবাই করে আমাদের বাস্তবিক জীবনের উপর তার প্রভাব কিছু হলেও রেখে আমরা পথ চলছি। আর আমার ব্যক্তিগতভাবে এটাও মনে হয় বিশেষ করে প্রত্যেক নারীর আধ্যাত্মিক শক্তি এই চেতনাটাই হওয়া উচিত। জীবনের অর্থ বোঝানোর জন্য বৈষম্যের সমাধি টানতে আমাদের সমাজে দুঃখের সাথে এখনো নারী পুরুষ শব্দ দুটো নিয়ে তুমুল সংগ্রাম করতে হয়।

আমার লক্ষ্য হওয়া উচিত আমার জীবনের সামগ্রিক বিষয়বস্তুর উপর স্বাধীনতা রপ্ত করা। আমার বলা, চলা, রুচি, ইত্যাদির উপর শক্ত একটা ভিত্তি নিজের জন্য তৈরি করা। আমাদের কখনো উচিত নয় শৈশবে কানামাছি খেলেছি বলে কানামাছির কথা মনে হলে আবেগ দিয়ে কান্নায় বুক ভাসিয়ে দিবো। কৈশোর আর যৌবনের কিছু হরমোনজনিত প্রেমের কারনে গোটা জীবনকে আবেগে ভরিয়ে রাখবো। এগুলো আমার জীবনের জন্য খুব করে এড়িয়ে চলার বিষয় বলে আমি মনে করি। কেননা আমি আমার পুরো জীবনটার জন্য শৈশবের ঐ কানামাছির কাছে নিজেকে আটকে রাখতে পারিনা। আমার পুরো একটা জীবনের অসংখ্য সুন্দর স্বপ্নগুলোর চেয়ে কৈশোর আর যৌবনের ঐ একটা প্রেমের কাছে নিজেকে ছোট করতে পারিনা। আমার জীবনটা এখনই শেষ হয়ে যাচ্ছেনা! আমার আরো অনেক পথ চলতে বাকি।

এই একদম ছোট ছোট বিষয়গুলোর জন্য কেন আমি নিজেকে শেষ করে ফেলবো। প্রেমিক, খেলোয়ার সে যেই হোক তারকাছে কেন নিজের অস্তিত্বকে জিম্মি করে ফেলবো। ওগুলো হাওয়ার মত উড়ে যাক। ওগুলো বানের জলে ভেসে যাক। আমার একটা সুন্দর জীবনের কাছে ওগুলো খুবই তুচ্ছ। আমি আমার পথে অদম্য অগ্রসর হয়ে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ থাকবো। আমি যেখানেই থাকি ছোট্ট কুঠির, রাস্তার পাড়, খোলামাঠ, লাইনের শেষে, আমার অবস্থান কখনোই যেন আর একজনের কাছে নির্ভরশীল না হয়ে যায়। নিজেকে আত্মনির্ভরশীল করতে উঁচু দালানে থাকার প্রয়োজন পড়েনা। দেশের একদম শীর্ষমণি হয়ে কথা বলার দরকার পড়েনা। আমি যা আমি যেখানে আছি সেখানে আমার নিজেকে দৃঢ়ভাবে অনুভব করতে পারাটাই যথেষ্ট। আর সেজন্য হা হুতাশ করে ঘটা করে উন্মুক্ত সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়ারও দরকার নেই। আমি সন্ধ্যায় আবছা অন্ধকারে স্যাঁতস্যাঁতে বাসায় বসে ভাবছি রাতে কি খাবো! এই এখানে অনুভব করাটাই যথেষ্ট। আমাদের নারীদের অন্যের উপর নির্ভরশীলতার অবসান হোক। আবেগ নয় চেতনাই শক্তিতে পরিণত হোক এই প্রত্যাশা।

Comments

comments